শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
Logo বিশ্বের সবচেয়ে ১০ দূষিত শহরের ৯টি ভারতে, বাংলাদেশে শীর্ষে মানিকগঞ্জ Logo সন্তান জন্ম দিয়েই পরীক্ষার হলে মা Logo বিচারিক ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হলো কামরুন্নাহারের Logo বেপরোয়া গাড়ির ধাক্কায় হাসপাতালে ফুটফুটে ইব্রাহিম, কাঁদছেন মা Logo শিশুর মুখে গামছা বেঁধে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আটক Logo হঠাৎ করেই কুমিল্লায় কার্যালয়ে ঢুকে কাউন্সিলরসহ দুজনকে গুলি করে হত্যা Logo প্রবাসী ভাইয়ের পরীক্ষা দিতে গিয়ে কারাগারে ছোটভাই Logo আজ খুলনায় পুলিশকে ধাওয়া করার যে ছবিটি ভাইরাল….. Logo চালকের এক হাতে পান অন্য হাতে চুন, উল্টে গেলো বাস Logo অফিস কক্ষে এক তরুণীর সঙ্গে উপজেলা চেয়ার‍ম্যানের ভিডিও ভাইরাল Logo হাফ ভাড়া দেওয়ায় প্রকাশ্যে এক ছাত্রী হেলপারের ‘অশ্লীল’ মন্তব্যের শিকার Logo প্রাইভেট কারের ধাক্কায় রিকশাকে চাপা, কিশোর চালক ও তার মা আ’ট’ক Logo দুই এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ তিন বোন খালার বাসা থেকে বেরিয়ে ‘নিখোঁজ’ Logo গর্ভ ভাড়া নিয়ে যমজ সন্তানের মা হলেন প্রীতি Logo সৌদি আরবে পৈশাচিক নির্যাতনের শিকার নারী, ফিরিয়ে আনলো র‍্যাব Logo টিকার দাম জানাতে নারাজ স্বাস্থ্যমন্ত্রী Logo চাঞ্চল্যকর হাসান হত্যা : সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের আমৃত্যু কারাদণ্ড Logo বাংলাদেশি সিনেমার ‘টাইমস স্কয়ার’ অভিষেক শুক্রবার Logo ‘টিকটক রাজ’ আরও দুই মামলায় গ্রেপ্তার Logo নৌকা ফেল করায় সরকারি টিউবওয়েল খুলে নিলেন সমর্থক Logo শিশুকন্যা হত্যায় সৎমায়ের ফাঁসি Logo বিদ্রোহীদের চাপে টেনশনে নৌকার প্রার্থীরা! Logo এবার আওয়ামী লীগ হেরেছে-আওয়ামী লীগের কাছে Logo ‘বঙ্গবন্ধু’ বায়োপিক: খালেদা জিয়ার চরিত্রে এলিনা শাম্মী Logo নারীর মরদেহ বাংলাদেশ সীমান্তে ফেলে গেছে বিএসএফ Logo দৃষ্টিনন্দন মসজিদ নির্মাণ করছেন চিত্রনায়িকা বর্ষা Logo বিয়ে ছাড়াই ৮ মাস সংসার, স্বীকৃতির দাবিতে কলেজছাত্রীর অনশন Logo রান্নাঘরে পাওয়া গেলো এসএসসি পরীক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ Logo ভোটকেন্দ্রে বিজয়ী প্রার্থীকে মারধর করলেন পরাজিত প্রার্থী Logo বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিএনপি নেতা ইউপি সদস্য নির্বাচিত!

গর্ভ ভাড়া নিয়ে যমজ সন্তানের মা হলেন প্রীতি

জনপ্রিয় খবর প্রতিনিধি : / ১৩ বার পঠিত
সময়: বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২১, ৭:৩৭ অপরাহ্ণ

এক ছেলে ও এক মেয়ের মা হন বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিনতা। সন্তানদের নাম রেখেছেন জয় আর জিয়া। স্বামী জিন গুডএনাফের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে প্রীতি হৃদয় থেকে ধন্যবাদ জানান চিকিৎসক, নার্স আর সারোগেটকে।

ভক্ত-অনুরাগীদের চমকে দিয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রীতি জিনতা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন সারোগেসির মাধ্যমে যমজ সন্তানের মা হওয়ার কথা। সারোগেসি বা অন্য নারীর গর্ভ ভাড়া নিয়ে এক ছেলে ও এক মেয়ের মা হয়েছেন প্রীতি। সন্তানদের নাম রেখেছেন জয় আর জিয়া। স্বামী জিন গুডএনাফের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে প্রীতি হৃদয় থেকে ধন্যবাদ জানান চিকিৎসক, নার্স আর সারোগেটকে। ২০১৬ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি জিনকে বিয়ে করেন প্রীতি। তারপর থেকে বেশির ভাগ সময় তিনি থাকেন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে। সারোগেসির মাধ্যমে সন্তানের জন্ম দেয়া বলিউডে নতুন কিছু নয়। শাহরুখের ছোট ছেলে আব্রামের জন্ম সারোগেসির মাধ্যমে। শিল্পা শেঠির মেয়ে সমিশার জন্মও সারোগেসিতে। এ ছাড়া করণ জোহর ও তুষার কাপুর বাবা হয়েছেন সারোগেসির মাধ্যমে। সানি লিওনও যমজ সন্তানের মা হন এ পদ্ধতিতে। সাবলাইম লিগ্যাল বিডি নামের ওয়েবসাইটে বলা হয়, সারোগেসি শব্দের একেবারে সোজাসাপ্টা অর্থ হলো গর্ভাশয় ভাড়া। একজন নারীর গর্ভে অন্য দম্পতির সন্তান ধারণের পদ্ধতিকে সারোগেসি বলা হয়। আইভিএফ পদ্ধতিতে স্ত্রী ও পুরুষের ডিম্বাণু ও শুক্রাণু দেহের বাইরে নিষিক্ত করে তা নারীর গর্ভাশয়ে প্রতিস্থাপন করা হয়।

সারগেসি শব্দের একেবারে সোজাসাপ্টা অর্থ হল গর্ভাশয় ভাড়া। একজন নারীর গর্ভে অন্য দম্পতির সন্তান ধারণের পদ্ধতিকে সারোগেসি বলে। আইভিএফ পদ্ধতিতে স্ত্রী ও পুরুষের ডিম্বাণু ও শুক্রাণু দেহের বাইরে নিষিক্ত করে তা নারীর গর্ভাশয়ে প্রতিস্থাপন করা হয়। অনেক চেষ্টার পরেও যখন সন্তান লাভের আর কোন আশা থাকে না তখনই কোনো দম্পতি সারোগেসির শরণাপন্ন হতে পারেন। সারোগেসির পেছনে অনেক কারণ থাকতে পারে। তার মধ্যে কয়েকটি হল-

১) বারবার চেষ্টা করা সত্ত্বেও গর্ভপাত হয়ে যাওয়া।

২) অসময়ে নারীর মেনোপজ বন্ধ হয়ে যাওয়া।

৩) আইভিএফ চিকিৎসার মাধ্যমেও গর্ভধারণ না হওয়া।

৪) জরায়ুতে অস্বাভাবিকতা দেখা যাওয়া কিংবা কোন অস্ত্রোপচারের জন্য জরায়ু যদি বাদ পড়ে থাকে।

উপরোক্ত এই কারণ গুলির মধ্যে যেকোনো একটি কারণ দেখা দিলেই দম্পত্তির সারোগেসির শরণাপন্ন হতে পারেন। এছাড়াও অনেক কারনেই মানুষ সারোগেট বেবি নিয়ে থাকেন, যেমন- সন্তান ধারনের কষ্ট সহ্য না করার ইচ্ছা, ব্যস্তাতার কারনে বা শারীরিক সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয়ে, বিয়ে না করে সিংগেল ফাদার বা মাদার হওয়ার ইচ্ছা, ইত্যাদি নানা কারনে মানুষ সারোগেট বেবি নিয়ে থাকেন। এধনের সারগেট বেবি নেওয়ার প্রবনতা ইন্ডিয়ায় কয়েক বছর আগেও ব্যপক জনপ্রিয় ছিল। শাহরুখ খান, আমির খান তাদের একাধিক সন্তান থাকার পরেও সারোগেট বেবি নিয়েছেন, এদিকে আবার বিয়ে না করেই করণ জোহার, তুষার কাপুড়,একতা কাপুড় এবং আরো অনেকেই সারোগেট বেবি নিয়েছেন। বলিউড এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রীতি জিনতা। সারোগেসির মাধ্যমে যমজ সন্তানের মা হয়েছেন তিনি। তার কোলে এসেছে এক কন্যা ও এক পুত্রসন্তান।

জানা গেছে, কন্যার নাম রেখেছেন জিয়া আর পুত্রের নাম জয়। বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) সকালে ইনস্টাগ্রামে এক স্ট্যাটাসে এসব তথ্য জানান প্রীতি।

প্রীতি জিনতা সামাজিক মাধ্যমে ইনস্টাগ্রামে লেখেন, ‘সবাইকে চমকপ্রদ একটি খবর জানাতে চাই। আজ আমি এবং গুডএনাফ ভীষণ আনন্দিত। আমরা আজ পরিপূর্ণ। আমাদের হৃদয় ভালোবাসায় ভরে গেছে। কারণ আমাদের যমজ সন্তান জয় জিনতা গুডএনাফ ও জিয়া জিনতা গুডএনাফ পরিবারে এসেছে।

জীবনের নতুন এই অধ্যায় নিয়ে আমরা খুবই উচ্ছ্বসিত। অবিশ্বাস্য এই যাত্রার সঙ্গে যেসব ডাক্তার, নার্স যুক্ত ছিলেন সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।’


সারোগেসির প্রকারভেদঃ

সারোগেসি সাধারণত দুই রকমের হয়। একটি হচ্ছে পার্শিয়াল সারোগেসি এবং আরেকটি হচ্ছে ট্রু সারোগেসি।

১) পার্শিয়াল সারোগেসি অনেকদিন ধরেই চলে আসছে, সন্তানধারণে এখানে মা কোন ভূমিকাই পালন করেন না। বাবার শুক্রাণু আর সারোগেট মায়ের ডিম্বানু থেকে জন্ম হয় শিশুর।

২) ট্রু সারোগেসি তে মায়ের ডিম্বাণু এবং বাবার শুক্রাণু নিয়ে ল্যাবে ভ্রূণ তৈরি করা হয়। এরপর সেই এম্ব্রায়ো বা ভ্রূণ সারোগেট মায়ের ইউটিরেস বা জরায়ুতে প্রতিস্থাপন করা হয়। বর্তমানে সারোগেসির এই পদ্ধতিটি বেশিরভাগ দম্পতি গ্রহণ করেন।

পার্শিয়াল সারোগেসির ক্ষেত্রে সাধারণত সারোগেট মাদারের ডিম্বাণু এবং গর্ভ ভাড়া নেওয়া হয়। এর ফলে এই পদ্ধতিতে সারোগেসির ক্ষেত্রে সন্তানের ওপর সারোগেট মাদারের একটি জৈবিক অধিকার থেকেই যায়। তবে ট্রু সারোগেসি পদ্ধতি অবলম্বন করলে দম্পতির পিতৃত্ব বা মাতৃত্ব নিয়ে কোনো সংশয় থাকে না। কারণ এই পদ্ধতিতে মায়ের শুক্রাণুর সাথে স্পার্ম ব্যাংকের অন্য পুরুষের শুক্রাণু কিম্বা বাবার শুক্রাণু অন্য মহিলার ডিম্বানুর সাথে নিষিক্ত করে ভ্রূণ তৈরি করা হয়।

তবে আইভিএফ পদ্ধতিতে ডিম্বাণু ও শুক্রাণু নিষিক্ত করা কে টেস্টটিউববেবী মনে করা যায় না। টেস্টটিউব বেবি এবং সারোগেছি ভিন্ন পদ্ধতি।

 

কমার্শিয়াল সারোগেছি

বানিজ্যিক সারোগেছিতে একটা নিদৃষ্ট পরিমান অর্থের বিনিময়ে একজন মা তার নিজের গর্ভে অন্য একজনের সন্তান ধারন করেন। এ ক্ষেত্রে সারোগেট মাদার পান অর্থ এবং ইন্টেনডেড প্যারেন্টস্‌ পান সন্তান।

২০০৫ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ভারত ছিল কমার্শিয়াল সারোগেছির হটস্পট, সারগেছি বিল ২০১৬ পাশ হবার পর বানিজ্যিক সারোগেছি নিষিদ্ধ হয়ে গেছে তবে আলটুরিস্টিক সারোগেছি চালু আছে। এছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বানিজ্যিক সারোগেছি প্রচলিত আছে, আবার অনেক দেশেই এটা অবৈধ।

সারোগেছির খরচ

ইন্ডিয়াতে একটা সারোগেট সন্তানের জন্য ১০ লাখ থেকে ৩০/৪০/৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত খরচ হয়।

এই পর্যন্ত আলোচনায় আমারা সারোগেছি সম্পর্কে একটা ধারণা পেলাম এবার আমরা দেখব বিভিন্ন দেশে সারোগেছি সংক্রান্ত আইন কানুন নিয়ে-

আপনারা স্ক্রিনে দেখতে পাচ্ছেন কোন কোন দেশের আইনে সারোগাছি লিগ্যাল, কোন কোন দেশে ইলিগ্যাল। এবং এটাও দেখতে পাচ্ছেন কোন কোন দেশে বানিজ্যিক সারোগেছির লিগ্যাল বা ইলিগ্যাল।

 ইসলামিক আইনে সারোগেছি

ইসলামিক আইনে টেস্টটিউব বেবি হালাল হলেও, সারগেছি হারাম।

ইসলামী স্কলারদের মতে, এই জাতীয় সারোগেট মাতৃত্বের অনুমতি নেই কারণ এটি জিনা (ব্যভিচার) এর সমতুল্য, যেহেতু সারোগেট তার বৈধ স্বামী নয় এমন ব্যক্তির নিষিক্ত ডিম বহন করে। যে সন্তানের জন্ম হয়, বৈধ বিবাহের মাধ্যমে তার কোন বংশগত সম্পর্ক নেই, এই কারনে সন্তানটি অবৈধ বলে গন্য হবে। যেহেতু সন্তানটি অবৈধ, সেহেতু এই পদ্ধতি অর্থ্যাৎ সারোগেছি কে হারাম বলা হয়েছে। ১১ থেকে ১৬ ই অক্টোবর ১৯৮৬ সালে, জর্ডানের রাজধানী আম্মানে ইসলামিক ফিকহ একাডেমি কাউন্সিলের তৃতীয় অধিবেশনে ঘোষনা করা হয় যে, সারোগেছি ইসলামে সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ।

বাংলাদেশে সারোগেছি

বাংলাদেশ একটি মুসলিম মেজরিটি কান্ট্রি হওয়ায় এখানে টেস্টটিউব বেবি আইনগত ভাবে বৈধ হলেও, সারোগেছির বিষয়টি এখনও আইনগত ভাবে বৈধতা পায় নি। কিন্তু জার্মানভিত্তিকসংবাদপত্র ডয়েচেভেলের বরাত দিয়ে জানা যায় বাংলাদেশে গোপনে গোপনে সারগেছি চলে বলে ধারণা করা হয়। বাংলাদেশে নিঃসন্তান দম্পতির সংখ্যা শতকরা ১৫ ভাগ বলে সাধারণভাবে ধরে নেয়া হয়, যদিও এ ব্যাপারে কোন সঠিক জরিপ নেই। ফাইন্ড সারোগেট মাদার নামক এই ওয়েব সাইটে দেখা যাচ্ছে অনেক বাংলাদেশিই সারগেট হওয়ার জন্য, আবার অনেকে সারোগেট ভাড়া নেওয়ার জন্য এড দিয়ে রেখেছেন।

আবার Elawoman নামক একটি ওয়েবসাইটে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের- ঢাকায় দুইটি এবং চিটাগং এ একটি প্রাইভেট হসপিটাল সারোগেছি সেন্টার হিসাবে লিস্টেড রয়েছে। এদের মধ্যে একটি ১০ লাখ, একটি ১৪ লাখ এবং একটি ১৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা সারোগেছি কষ্ট দিয়ে রেখেছে। আমার ধারণা এরা সারোগেছি ক্লাইন্ট ইন্ডিয়ায় ফরোয়ার্ড করে থাকে। Ela woman এর ইউটিউব চ্যানেলে একটা ইন্টারভিউ আছে যেখানে দেখা যাচ্ছে একজন নারি, বাংলাদেশ থেকে ইন্ডিয়ায় গিয়ে সারোগেছি করানোর অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।

সারোগেছি নিয়ে মানুষের ভিন্ন ভিন্ন মতভেদ লক্ষনীয়, একাংশের মতে, নিম্নবিত্ত কোনো মহিলা যদি অর্থের বিনিময়ে নিজের গর্ভ স্বেচ্ছায় ভাড়া দেন, তাহলে আপত্তি কেন হবে? যদি ডাক্তাররা তাঁর দৈহিক ও মানসিক স্বাস্থ্য উপযুক্ত বলে মনে করেন৷ কিডনি বেচার কিংবা পতিতাবৃত্তি করার চেয়ে এটা কি ভালো নয়? আবার অন্যদিকে বাণিজ্যিক সারোগেসির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে নারীবাদীদের অন্য অংশে বলেন, ভারতে সারোগেসি ক্লিনিকগুলি ধনীদের জন্য নিছক ‘বেবি-ফ্যাক্টরি’ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ আইন না থাকায় শেষ মুহূর্তের শিকার হচ্ছে গরিব ও অশিক্ষিত মহিলারা।

সারোগেছি ছাড়াও সন্তান দত্তক নেওয়া একটা জনপ্রিয় পদ্ধতি, বাংলাদেশের আইনে সন্তান দত্তক নেওয়ার পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে এই পোস্টটি দেখতে পারেন। বন্ধুরা এ সম্পর্কে আপনাদের কি মতামত তা কমেন্টে জানাতে ভুলবেনা, দেখা হবে পরবর্তী পোস্টে, সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

এই বিষয়ে ভিডিয়োটি দেখতে পারেন, ধন্যবাদ

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

মুজিব শতবর্ষ

সুরক্ষা অনলাই পোটার্ল

বাংলা পত্রিকাসমূহ

ইতিহাসের এই দিনে

বাংলাদেশের ৩৫০ ‍জন এমপিদের তালিকা

বিজ্ঞাপন

Web Deveoped By IT DOMAIN HOST