মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৪১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
Logo করোনা পরীক্ষার সূত্র ধরে ১৮ বছরের পলাতক আসামি গ্রেপ্তার Logo হোটেল-রেস্তোরাঁর কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেবে ঢাকা উত্তর সিটি Logo স্পনসর বানানোর নামে ‘চাঁদাবাজি’ Logo বিনা নোটিশেই অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবে: মেয়র আতিক Logo উচ্ছেদ অভিযানে মেয়রকে বাধা, ২ মহিলা নেত্রী আটক Logo তাড়াশে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় জরিমানা গুনলেন ৯ জন Logo ধর্ষণের শিকার শিশু: অজুহাতে ভর্তি বাতিল! Logo বাবার মরদেহ দেখে ছেলের মৃত্যু! Logo তুরস্ক প্রেসিডেন্টকে ‘ষাঁড়’ বলায় কারাগারে সাংবাদিক Logo চোখ ধাঁধানো ঢাকা টাঙ্গাইল চার লেন Logo স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এলাকা ছাড়া করার নির্দেশ আওয়ামী লীগ নেতার! Logo দুই সন্তান জাপানি মায়ের কাছে থাকবে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত Logo ‘সারোগেট পদ্ধতিতে সন্তানকে স্বাগত জানিয়েছি’ Logo বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তানের গ্রুপে পড়ল বাংলাদেশ Logo আইপিএলে নিলামে সর্বোচ্চ দামে সাকিব-মোস্তাফিজ Logo গভীর রাতে মদ্যপ অবস্থায় বন্ধুসহ স্পর্শিয়া আটক Logo চিত্রনায়ক ইমনকে লাঞ্ছিত, এফডিসিতে তুমুল উত্তেজনা Logo ফের করোনায় আক্রান্ত হলেন পূর্ণিমা Logo হোয়াটসঅ্যাপেও আসছে মেসেজ রিয়্যাকশন ফিচা Logo ধর্ষণ ও পরে শ্বাসরোধে হত্যা নায়িকা শিমুর ডিএনএ টেস্ট করছেন চিকিৎসকরা Logo শাওনের ঘোরাঘুরি Logo আশা করেননি, তবে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন Logo ‘আমাদের বিয়েতে গায়েহলুদ, মেহেদি, নতুন শাড়ি কিছুই ছিল না’ Logo ট্রাফিক পুলিশকে টাকা ছুড়ে মারলেন ক্ষুব্ধ বিদেশি Logo জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ কাল Logo নৌকাকে ছাড়িয়ে গেছে ‘স্বতন্ত্র’ Logo বগুড়ার ১৪ ইউপির ৭টিতে বিএনপি নেতাদের জয় Logo বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়া গণতন্ত্রের জন্য ভালো নয় Logo জনঘনত্ব ঢাকার চার এলাকায় Logo ১১ বছর পরে কন্যা সন্তানের মা হলেন তিশা

মমতার জয়ের ছয় কারণ

জনপ্রিয় খবর প্রতিনিধি : / ৯০ বার পঠিত
সময়: সোমবার, ৩ মে, ২০২১, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

এতদিন আলোচনা ছিল ভোটে কি হতে চলেছে, আর এবার পশ্চিমবঙ্গের ভোটের ফলাফল বেরোনোর পর মুখে মুখে প্রশ্ন কেন এমন হলো? কিভাবে এমন হলো? নেতারা যতই বড় হোক না কেন নির্বাচনে জেতা হারা মানুষের হাতে। আর পশ্চিমবঙ্গের মানুষ এবার দুই হাত তুলে মমতাকে ভোট দিয়েছেন। যদিও নির্বাচনের আগে পশ্চিমবঙ্গে বারবার এসেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং জোর গলায় ঘোষণা করেছিলেন বিজেপি এবার দুই শ’র বেশি আসন পাবে বাস্তবে দেখা গেল অন্য চিত্র। মমতার পক্ষে এই যুদ্ধ সহজ ছিল না কারণ বিজেপি সর্বশক্তি নিয়োজিত করেছিল এই যুদ্ধে। তাহলে মমতা জিতলেন কি করে সেটাই দেখে নেওয়া যাক :

১. মুসলিম ভোট : পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৩০% ভোটাররা মুসলিম এবং তাদের একটা বড় অংশ এতদিন কংগ্রেস এবং বাম দলগুলোকে সমর্থন করেছে। কিন্তু এবার সেই ভোটের প্রায় ৯০ শতাংশ বেশি মমতার ঝুলিতে পড়ে গেছে। তার কারণ বিজেপি ধর্ম ব্যবহার করে ভোটারদের মধ্যে যেখানে বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা করছিল মমতা তখন সবাইকে নিজের সঙ্গে নিয়ে চলার আশ্বাস দিয়েছেন। বলতে দ্বিধা নেই মুসলিমরা মমতাকে শান্তির প্রতীক হিসেবে দেখেছেন।

২. মহিলাদের সমর্থন : মমতাকে পশ্চিমবঙ্গের মানুষ কোনো দিন মহিলা-পুরুষ এই চোখে দেখেননি। কিন্তু এই বারের ভোটে মমতার আবির্ভাব হয়েছিল বাংলার মেয়ে হিসেবে। বিজেপি নেতারা প্রতি জনসভায় মমতাকে দিদি ও দিদি বলে ডাক দিয়ে যেভাবে অপদস্থ করার চেষ্টা করেছিলেন তা পশ্চিমবঙ্গের মহিলাদের মনে হয়েছে মহিলাদের অপমান। তাই ভোট বেড়েছে মমতার মহিলাদের মধ্যে। তাছাড়া বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের মাধ্যমে মহিলাদের সুযোগ-সুবিধা দিয়ে তাদের মন জয় করেছেন মমতা।

৩. চেনা মুখের অভাব : নির্বাচন হচ্ছিল পশ্চিমবঙ্গে কিন্তু বিজেপির রাজ্য স্তরের কোনো নেতার কোনো গুরুত্ব ছিল না বিজেপিতে। সব সিদ্ধান্ত দিল্লির নেতারা নিয়েছেন আর পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতারা থেকেছেন পিছনের সারিতে। তাছাড়া বিজেপির কোন মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা না দিয়ে নির্বাচনে আসে যার অর্থ বিজেপির কোনো মুখ ছিল না এই নির্বাচনে।

৪. বিজেপি বহিরাগত : অধিকাংশ জনসভায় যারা বিজেপির প্রধান বক্তা ছিলেন তারা হিন্দিতে ভাষণ দিতেন এবং অধিকাংশ মানুষ তা বুঝতে পারতেন না। এই হিন্দি সংস্কৃতি আধিক্যের কারণে মমতা বিজেপিকে বহিরাগতদের দল বলতে থাকেন এবং মানুষ তা বিশ্বাস করে।

৫. করোনা পরিস্থিতি : যদিও ভোট শুরু হয়েছে বিজেপির ধর্মীয় বিভাজনের রাজনীতির খেলা দিয়ে কিন্তু ভারতে যত করোনা পরিস্থিতি জটিল হয়েছে বিজেপির বিরুদ্ধে জনমত তৈরি হয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে বিজেপির নেতাদের মিছিল করার প্রবণতা মানুষ ভালো চোখে নেননি।

৬. প্রশান্ত কিশোরের অবদান : এবারের ভোটে তৃণমূলের হয়ে ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের অবদান স্বীকার করতেই হবে। দু’বছর আগে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ফল খুবই খারাপ হয়েছিল এবং তখন ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরকে নিয়োগ দেয় তৃণমূল। গত দুই বছর পশ্চিমবঙ্গের গ্রামে গ্রামে গিয়ে প্রশান্তের টিমের ছেলেমেয়েরা তৃণমূলের পক্ষে এক অনুকূল পরিস্থিতির সৃষ্টি করে, যা তৃণমূলের পক্ষে মানুষকে ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে।

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনে বুথফেরত জরিপ
মমতাই থাকছেন

ভারতজুড়ে করোনার তাণ্ডবের মধ্যেই শেষ হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের শেষ দফার ভোটগ্রহণ। এর পরই শুরু হয়েছে বিভিন্ন সংস্থা ও সংবাদমাধ্যমের বুথফেরত জরিপের ফল প্রকাশের বন্যা। তাতে দেখা যাচ্ছে, একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের ক্ষমতায় আসছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল।

গত ২৭ এপ্রিল প্রথম দফার ভোটের মধ্য দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের শুরু। অষ্টম দফার ভোটগ্রহণের মধ্য দিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার তা শেষ হয়। মোট ২৯৪ আসনে নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও দুই প্রার্থীর মৃত্যু হওয়ায় সংশ্লিষ্ট দুটি আসনে নির্বাচন স্থগিত করা হয়।

আগামী রবিবার ফল প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। এর আগেই বুথফেরত জরিপের ফল নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপক আলোচনা। যেখানে কোনো দল ১৪৮ আসন পেলেই সরকার গঠনের এখতিয়ার পাচ্ছে, সেখানে তৃণমূলের ঝুলিতে উঠতে চলেছে দেড় শটির বেশি আসন।

আনন্দবাজারের (এপিবি-আনন্দ) বুথফেরত জরিপ বলছে, ৪২ শতাংশ ভোট পেয়ে ১৫২ থেকে ১৬৪ আসন নিয়ে ক্ষমতায় থাকছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) পেতে যাচ্ছে ১০৯ থেকে ১২১ আসন। বাম-কংগ্রেস জোট পেতে পারে ১৪ থেকে ২৫ আসন।

টাইমস নাউয়ের বুথফেরত জরিপে দেখা যাচ্ছে, মমতার দল ১৫৮ আসনে জিততে চলেছে। বিজেপি জিততে যাচ্ছে ১১৫ আসনে। আর বাম-কংগ্রেস জোট পাচ্ছে ১৯ আসন।

এনডিটিভির বুথ জরিপেও এগিয়ে জোড়া ফুল। পেতে যাচ্ছে ১৪৯টি আসন। পদ্মফুলের ঘরে যাচ্ছে ১১৬ আসন। আর বাম-তৃণমূল জোটের ঘরে যাচ্ছে ১৬ আসন।

এবিপি-সিএনএক্সের বুথফেরত জরিপেও ১৫৭ থেকে ১৮৫ আসন নিয়ে তৃণমূলের সরকার গড়ার আভাস দেওয়া হয়েছে। বিজেপি পেতে পারে ৯৬-১২৫টি আসন, বাম-কংগ্রেস জোট আট থেকে ১৬ আসন।

শুধু রিপাবলিক-সিএনএক্সের বুথফেরত জরিপে তৃণমূল ও বিজেপির আসনসংখ্যা কাছাকাছি দেখানো হয়েছে। তাদের জরিপ বলছে, তৃণমূল পেতে পারে ১২৮ থেকে ১৪৮টি আসন এবং বিজেপি পেতে পারে ১৩৮ থেকে ১৪৮ আসন। বাম-কংগ্রেসের ঘরে যেতে পারে ১১ থেকে ২১ আসন।

তিন যুগের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে ২০১১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় বসে। ২০১৬ সালের নির্বাচনেও ক্ষমতা ধরে রাখে তৃণমূল। সেবার ২৯৪ আসনের মধ্যে তৃণমূল পেয়েছিল ২১১ আসন। বিজেপি সেবার জিতেছিল মাত্র তিনটি আসনে। আর কংগ্রেস ৪৪টি এবং বামফ্রন্ট ৩২টি আসন জিতেছিল।

পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি আসাম, তামিলনাড়ু, কেরালা ও পুদুচেরি বিধানসভা নির্বাচনের ফলও আগামী রবিবার প্রকাশ করা হবে। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা, টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

মুজিব শতবর্ষ

সুরক্ষা অনলাই পোটার্ল

বাংলা পত্রিকাসমূহ

ইতিহাসের এই দিনে

বাংলাদেশের ৩৫০ ‍জন এমপিদের তালিকা

বিজ্ঞাপন

Web Deveoped By IT DOMAIN HOST